Home > All Updates > Career Guide > After 12th > আইটি সেক্টরে চাকরির স্বপ্ন? প্রস্তুতি শুরু হোক উচ্চমাধ্যমিকের পরেই; কোন কোর্সে ভর্তি হবেন? ঠিক করুন এখনই
After 12thAll UpdatesBengaliCareer GuideCourse

আইটি সেক্টরে চাকরির স্বপ্ন? প্রস্তুতি শুরু হোক উচ্চমাধ্যমিকের পরেই; কোন কোর্সে ভর্তি হবেন? ঠিক করুন এখনই

শেষ হয়েছে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। কেরিয়ার নিয়ে ভাবনার এটিই হলো সঠিক সময়। একটা সঠিক সিদ্ধান্ত বদলে দিতে পারে জীবনের গতিপথ। আর এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে প্রয়োজন সেল্ফ কাউন্সেলিং। যদিও আজকের আলোচনার বিষয় এটি নয়; তবু কেরিয়ারের জন্য সঠিক বিষয় নির্বাচন করতে নিজেকে বোঝা প্রয়োজন সবার প্রথম।

যে ধরনের চাকরির কথা ছাত্রছাত্রীরা ভেবে থাকে, তার মধ্যে অন্যতম হলো আইটি সেক্টর। বিশেষ করে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে আসা ছাত্রছাত্রীদের স্বপ্নের চাকরির জায়গা হলো আইটি সেক্টর। তবে তার আগে জেনে নেওয়া উচিত আইটি সেক্টর বা আইটি কোম্পানি আসলে কি? প্রতিটি সফটওয়্যার কোম্পানি কেই বলা যায় আইটি কোম্পানি, কিন্তু আইটি কোম্পানি মানেই শুধুমাত্র সফটওয়্যার কোম্পানি নয়৷ যেকোনো কম্পিউটার অপারেশনস বা তার ডেভেলপমেন্টের কাজ করে যে কোম্পানি গুলি, সেগুলিই মূলত আইটি কোম্পানি বা আইটি সেক্টর বা আইটি ইন্ডাস্ট্রি।

Job In IT (Source _Google)

Read More ১৬০ টি শূন্যপদে প্রার্থী নিয়োগ করবে এয়ার ইন্ডিয়া এয়ার ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসেস – জেনে নিন বিস্তারিত

আই আই টি

আই আই টি থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করা ছাত্রছাত্রীদের প্রতি প্রথমেই নজর থাকে দেশের লিডিং আই টি কোম্পানি গুলির। উচ্চমাধ্যমিক পাশ করে বা শর্ত সাপেক্ষ উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী রা বসতে পারেন আই আই টি এন্ট্রাস পরীক্ষায়। পুরো দেশব্যাপী এই পরীক্ষা টি নেওয়া হয়।

Also Read উচ্চমাধ্যমিক বা টুয়েলভের পর কোন দিকে গেলে সাফল্য আসবে ভবিষ্যতে- আলোচিত হলো তেমনই একটি বিষয় খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান

ইঞ্জিনিয়ারিং

সাধারণত উচ্চমাধ্যমিকের পর জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি হওয়া যায় বিটেক কোর্সে৷ আইটি ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার অ্যান্ড টেলি কমিউনিকেশন, ইইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ইত্যাদি বিষয় গুলি নিয়ে পড়াশুনা করে আসা যায় আইটি সেক্টরে। সর্বভারতীয় স্তরে এ আই ইইই, জে ইইই মেইন, জেইইই অ্যাডভান্সড, ভি আই ইইই ইত্যাদি পরীক্ষা ছাড়াও বিভিন্ন রাজ্য আলাদা ভাবেও পরীক্ষা নেয়৷

বি এস সি ইন কম্পিউটার সায়েন্স

কম্পিউটার সায়েন্সে বি এস সি করেও আইটি সেক্টরে কাজ পাওয়া যায়৷ সাধারণত কম্পিউটার অপারেশনস এর কাজ করতে হয় এক্ষেত্রে। ত্রিপুরা, পশ্চিমবঙ্গ সহ বিভিন্ন রাজ্যের বেশ কিছু কলেজ এ কম্পিউটার সায়েন্স এ বি এস সি পড়ানো হয়।

Also Read সেবাই যখন জীবিকা – কিভাবে আসবেন এই পেশায়- রইলো তার তত্ত্বতালাশ

Also Read চাকরি পাওয়ার চাবিকাঠি লুকিয়ে থাকে সিভি তে – কিভাবে লিখবেন কারিকুলাম ভাইটা

ব্যাচেলর ইন কম্পিউটার অ্যাপলিকেশনস

আই টি সেক্টরে চাকরির একটি বড় সুযোগ পাওয়া যায় বি সি এ করে। অনেকে কম্পিউটার অ্যাপলিকেশনস এ ব্যাচেলর ডিগ্রি করে মাস্টার্স করে চাকরিতে আসেন, তবে ব্যাচেলর ডিগ্রি করেও আসা যায় চাকরিতে। এক্ষেত্রে নিয়োগকর্তারা দেখেন প্রার্থীর বিষয়ের প্রতি সত্যিকারের আগ্রহ, ডেডিকেশন, জ্ঞানের গভীরতা। কম্পিউটারের খুঁটিনাটি  বা সফটওয়্যার বা ইন্টারনেট সংক্রান্ত অন্য কাজ করে থাকলে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়৷ টিসিএস, আইবিএম এর মত উচ্চমানের আইটি কোম্পানি গুলি তিন থেকে চার ধাপের ইন্টারভিউ এর মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করে। সাধারণত ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ বা কিছু ক্ষেত্রের ম্যানেজমেন্ট কলেজ গুলিতে বিসিএ এর কোর্স পড়ানো হয়।

অ্যানিমেশন

বর্তমান চাকরি ক্ষেত্রে একটি বড় জায়গা জুড়ে আছে অ্যানিমেশন। অ্যানিমেশন নিয়ে ডিপ্লোমা বা ডিগ্রি কোর্স করেও আজকাল সুযোগ মিলছে আইটি সেক্টরে কাজ করার। উচ্চমাধ্যমিকের পর যারা তথাকথিত ডিগ্রির বাইরে গিয়ে পড়াশোনা করতে চান, আঁকার হাত ভালো থাকলে আসতেই পারেন এই পেশায়। তবে কম্পিউটার ব্যবহারে দক্ষ হতে হবে। লোগো ডিজাইনিং, গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর মত কাজ করা যায়।